সাফ ফুটবল ২০১৮: ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়ে বাংলাদেশের দুর্দান্ত সূচনা 

সাফ ফুটবল এ নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে হারিয়ে ২-০ গোলে হারিয়ে টুর্নামেন্টে শুভ সূচনা করলো স্বাগতিক বাংলাদেশ। 

সাফ ফুটবল ২০১৮: ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়ে বাংলাদেশের দুর্দান্ত সূচনা 
Source: Click Ittefaq

সাফ ফুটবলে বাংলাদেশর প্রতিপক্ষ হিসেবে ভুটান বরাবরই দূর্বল। অন্ততঃ আতীতের রেকর্ড তাই বলবে। সাফ ফুটবল এ দুই দলের ৪ বারের সাক্ষাতে ৩ বারই জয়ী দলের নাম বাংলাদেশ, আর অন্য একটি ম্যাচ হয়েছিল ড্র। কিন্তু মাঠের খেলায় তো আর সব সময় পরিসংখ্যান আর রেকর্ড কাজে আসে না। কারন ঠিক দুই বছর আগে এশিয়া কাপের প্রাক বাছাই পর্বে এই ভুটানের কাছে ৩-১ গোলে লজ্জাজনক ভাবে হেরেই আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে নির্বাসনে গিয়েছিল বাংলাদেশ ফুটবল।

আন্তর্জাতিক ফুটবলে থেকে ২ বছরের নির্বাসন শেষে বাংলাদেশের শুরুটা অবশ্য খুব একটা খারাপ হয় নি। সাফ ফুটবল এর কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশ অনুশীলন ক্যাম্প করেছে কাতার আর কোরিয়ায়। আর সেই ক্যাম্প থেকে যে কিছুটা হলেও দলকে একটা চেহারায় ফিরিয়ে এনেছেন নতুন কোচ জেমি ডে, সেটা এশিয়ান গেমসে দলের ইতিহাস গড়া পারফর্মেন্স দেখাই আন্দাজ করা যাচ্ছিল।

কিন্তু তার পরেও ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে কিছুটা হলেও চিন্তার ভাঁজ ছিল বাংলাদেশ দলের মধ্যে। তবে সব আশংকা দূর করে নিজেদের প্রত্যাশিত ফলটাই পেয়েছে জেমি ডের শিষ্যরা।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমনাত্মক ফুটবল খেলতে শুরু করে বাংলাদেশ। যার ফল স্বরুপ ম্যাচের ৩ মিনিটের মাথায় ভুটানের কাছ থেকে কর্নার আদায় করে বাংলাদেশ। অবশ্য সেই কর্নার কিক থেকে গোল না পেলেও গোল করার রাস্তা সবচেয়ে সহজ সুযোগটা পেয়ে যায় বাংলাদেশ।

ডিবক্সের মধ্যে কর্নার কিকে হেড করার প্রতিযোগিতায় থাকা বাংলাদেশের এক খেলোয়াড়কে ধাক্কা মেরে ফেলে দেন ভুটানের তেশ্রীং দর্জি। আর এতেই হলুদ কার্ড সহ পেনাল্টির বাসি বাজিয়ে দেন ম্যাচের পরিচালক থাই রেফারি। আর পেনাল্টি থেকে গোল করার এই সুবর্ণ সু্যোগটি হাতছাড়া করেন নি বাংলাদেশের ডিফেন্ডার তপু বর্মন। আর এতেই ম্যাচের ৪ মিনিটেই লিড পেয়ে যায় বাংলাদেশ।

অবশ্য এই গোলের পরেও বেশ আক্রমনাত্নক ফুটবলই খেলেছে বাংলাদেশ। কিন্তু মাঝ একবার ডিফেন্সের ভুলে প্রতিপক্ষকে প্রায় গোল উপহারই দিয়ে বসেছিল বাংলাদেশ। অবশ্য  স্ট্রাইকারের ভুলে গোল থেকে বঞ্চিত হয় ভুটান। ওই এক গোলের লিড নিয়েই প্রথমার্ধে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আবারো আগ্রাসী বাংলাদেশ শিবির। ম্যাচের ৪৭ মিনিটে অসাধারণ এক ফিনিশিং এ দলকে দ্বিতীয় গোল এনে দেন বাংলাদেশের স্ট্রাইকার মাহাবুবুর রহমান সুফিল। ভুটানের ডিবক্সের ডান প্রান্ত দিয়ে ঢুকে অসাধারণ এক শটে বল জালে পাঠান এই স্ট্রাইকার।

এই গোলে ২-০ এর লিড পেয়ে অনেকটাই নির্ভার হয়ে যায় বাংলাদেশ দল। এরপর থেকে কিছুটা ডিফেন্সিভ ফুটবল খেলতে থাকে জামাল ভুঁইয়া-মামুনুলরা। আর কোচ জেমি ডে’র শিষ্যদের এই ফুটবল দেখতে খুব একটা উপভোগ্য না হলেও বেশ কার্যকরী। কারন এই কৌশলে ম্যাচের বাকি সময়ে দল আর কোন গোল না পেলেও কখনোই মনে হয় নি গোল খেয়ে বসতে পারে।

সাফ ফুটবল ২০১৮: ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়ে বাংলাদেশের দুর্দান্ত সূচনা 
Source: The Daily Star

তাই ম্যাচ শেষে কোচ জেমি ডে তার শিষ্যদের প্রসংশাই করেছেন।  আর তিনি এও বলেছেন, “জটিল এই গ্রুপের পয়েন্ট তালিকার ঝামেলা এড়াতে প্রথম ম্যাচে জয়টা খুবই দরকার ছিল। “

গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের পরবর্তী খেলা আগামী ৬ই সেপ্টেম্বর। আর প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকছে পাকিস্তান। আর সেই ম্যাচেও বাংলাদেশ দল এক কার্যকরী জয় দিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করবে এমনটাই আশা সবার।

, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,