বিশ্বকাপ ২০১৮ঃ নির্দয়হীন নক-আউট পর্বের জন্য আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের অপেক্ষা

অসাধারণ এক গ্রুপ পর্বের পরে আজ বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টায় আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্সের মধ্য দিয়ে শেষ ১৬ এর পর্ব শুরু হতে যাচ্ছে। অনেক ফুটবলপ্রেমীতো ধরেই নিয়েছিলেন যে আর্জেন্টিনা শেষ ১৬ তে উঠতে পারবে না। কিন্তু আর্জেন্টিনা আহত বাঘের মত গ্রুপ পর্বের ম্যাচ গুলো খেলেছিল যার থেকে ভয়ংকর আর কিছুই হতে পারে না।

আর্জেন্টিনা এবং ফ্রান্স উভয়ই যেকোন ফুটবল বিশ্বকাপের এক আসরে এখন পর্যন্ত ২ বার একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে এবং উভয় ম্যাচেই আর্জেন্টিনা জয়লাভ করে।প্রথমবার ১৯৩০ সালেউরু গুয়েতে যখন আর্জেন্টিনা ফ্রান্সের মুখোমুখি হয় তখন তারা ১-০ ব্যবধানে জয়লাভ করে।আরপরবর্তিতে ১৯৭৮ সালে ৪০ বছর পূর্বে আর্জেন্টিনায় তারা একে অপরের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বে খেলেছিল যেখানে আর্জেন্টিনা ২-১ ব্যবধানে জয়লাভ করেছিল।

বিশ্বকাপ ২০১৮ঃ নির্দয়হীননক-আউটপর্বেরজন্যআর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সেরঅপেক্ষা
Source: 1000PDF

উভয় দলই চ্যাম্পিয়নঃ আর্জেন্টিনা পর্যায়ক্রমে ১৯৭৮ ও ১৯৮৪ সালে বিশ্বকাপ ট্রফি মাথার উপর তুলে ধরেছিল।আর ফ্রান্স কেবল একবার ১৯৯৮ সালে বিশ্বকাপ ট্রফি জিতে। সুতরাং উভয় দলই এবারের বিশ্বকাপ ট্রফি জেতার জন্য উপযুক্ত দাবিদার।কিন্তু ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস! তাদের যে কোন একজনকে আজকে বিদায় নিতে হবে।

আজকের ম্যাচে ৯ জন খেলোয়াড় কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ খেলার জন্য যথেষ্ট উদ্বিগ্ন থাকবে।কারণ ফিফার নিয়ম আনুযায়ী আজকের ম্যাচে তাদের মাঝে এক জন যদি হলুদ কার্ড পায় তাহলে তাদেরকে এক ম্যাচের জন্য বহিষ্কৃত হতে হবে।

আর্জেন্টিনাঃ জাভিয়ের ম্যাশ্চেরানো, ইভার বানেগা, নিকোলাস ওটামেন্ডি, গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো, মার্কোস আকুনা, লিওনেল মেসি।

ফ্রান্সঃ পল পোগবা, ব্লেইজ ম্যাটউইডি, করেনটিন টলিসো।

এছাড়াও সেরা ১১ দেখার জন্য আমাদের আজকের ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে । তাহলেই আমরা নিশ্চিত হব যে পরের ম্যাচে কে খেলতে পারবে আর কে পারবে না।

আর্জেন্টিনার সম্ভাব্য একাদশঃ

ফ্রাঙ্কো আরমানি, গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো, নিকোলাস ওটামেন্ডি, মার্কোস রোজো, নিকোলাস তালিয়াফিগো, ইভার বানেগা, জাভিয়ের ম্যাশ্চেরানো, এঞ্জো পেরেজ,অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, লিওনেল মেসি, গঞ্জালো হিগুয়েন।

বিশ্বকাপ ২০১৮ঃ নির্দয়হীননক-আউটপর্বেরজন্যআর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সেরঅপেক্ষা
Source: Free Super Tips

কিন্তু আজকের ম্যাচে হিগুয়েন এর পরিবর্তে পাভোনের শুরু থেকে খেলার অনেক সম্ভাবনা রয়েছে। যদি এমন হয় তাহলে তারা ৪-৩-৩ ফরমেশনে খেলতে পারে। অন্যথায় ৪-৪-২ ফরমেশনে খেলতে পারে। দেখা যাক, সাম্পাওলি কি সিদ্ধান্ত নেন।

ফ্রান্সঃ আন্তোনিও গ্রিজম্যান, বেঞ্জামিন পাভার্দ, হুগো লরিস, কাইলিয়ান এম্বাপে, লুকাস হার্নান্দেজ, অলিভিয়ের জিরু, ওসমান ডেম্বেলে, পল পগবা, এনগোলো কন্তে, স্যামুয়েল উমতিতি, রাফায়েল ভারানে।

ফ্রান্সের সম্ভাব্য ফরমেশনঃ ৪-২-৩-১।

মেসি যখন থেকে আর্জেন্টিনার হয়ে খেলা শুরু করে, আর্জেন্টিনা এর পরে কোন বিশ্বকাপ জিততে পারে নি। সুতরাং খেলোয়াড়দের সাথে সমর্থকরাও আজকের ম্যাচ নিয়ে অনেক চিন্তিত থাকবেন।

বিশ্বকাপ ২০১৮ঃ নির্দয়হীননক-আউটপর্বেরজন্যআর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সেরঅপেক্ষা
Source: chile.as.com

এদিকে ফ্রান্সের দলপতি ও গোলরক্ষক আজকের ম্যাচ নিয়ে বলেন, “আমরা অনেক বেশি উত্তেজিত। আর্জেন্টিনা গত বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলেছে, তারা অনেক বড় ফুটবল খেলুড়ে দেশ এবং সমর্থকেরা শহরে অবস্থান করছে। এই ম্যাচ আমাদের জন্য অনেক গ্রুত্বপূর্ণ এবং আমরা জেতার জন্য এসেছি। এর মাঝে আরেকটি নক-আউট শুরু হতে যাচ্ছে।“ (কার্টেসিঃ ফিফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট)

বিশ্বকাপ ২০১৮ঃ নির্দয়হীননক-আউটপর্বেরজন্যআর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সেরঅপেক্ষা
Source: YouTube

সমর্থকদের মাঝে এমন প্রশ্নও উঠেছে যে, “ ফ্রান্স কি ক্রোয়েশিয়ার কাছ থেকে কিছু শিখতে পারবে?” হবেই না কেন? কারণ ফ্রান্স অনেক শক্তিশালী দল। হয় এবার না হয় আর কখনোই না। ৪০ বছর পরে ফিফা বিশ্বকাপে ফ্রান্সের প্রতিশোধ নেওয়ার এটিই একমাত্র সুযোগ। সমর্থকেরা পল পগবা ও আন্তনিও গ্রিজম্যানের থেকে অনেক কিছু পাওয়ার আশায় থাকবে। তারা কি পারবে সেই আশা পূরণ করতে?

, , , , , , , , , , , , ,