বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় ওয়ানডে

বাংলাদেশ ৪১ রানের ব্যবধানে স্বাগতিক কে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে। ২৫শে জুলাই বুধবার গুয়ানা প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে ২য় ম্যাচে স্বাগতিকরা খেলায় সমতা ফেরানোর একটি প্রচেষ্টায় থাকবে।

টাইগাররা এবছরের মোট এখন পর্যন্ত ছয়টি ম্যাচ খেলেছে যেটির চারটিতেই তারা জয়লাভ করেছে। অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবছর এখন পর্যন্ত পাঁচটি ম্যাচ খেলেছে যার মধ্যেতারা চারটি ম্যাচে পরাজিত হয়েছে।

পাঁচটি ম্যাচের সব কয়টি এই ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হয়েছে তাই তাদের লক্ষ্য থাকবে যেন অতীতের পুনরাবৃত্তি না হয়, এবং অতীতকে ভুলে গিয়ে তারা আগামী ম্যাচে জয়লাভ করার প্রচেষ্টায় একতাবদ্ধ হয়ে মাঠে নামবে।

Source: Bangla News 24

বাংলাদেশঃ

টেস্ট সিরিজে খুব খারাপ ভাবে পরাজিত হবার পরে ওয়ানডে সিরিজের শুরুতে প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ টাইগাররা জয় লাভ করে। ওয়ানডে ম্যাচের প্রথম জয় তাদের মধ্যে আলাদা সাহস এবং শক্তি সঞ্চারণ করেছে।

স্বাগতিকদের সাথে ১-০ জয় টাইগারদেরকে আত্মবিশ্বাসী এবং আরো শক্তিশালী করেছে যেটা পরবর্তী ম্যাচ গুলোতে তাদের ভালো করার জন্য আরও উৎসাহিত করছে।

প্রথম ওয়ানডেতে তামিম ইকবাল এবং সাকিব আল হাসান ব্যাট হাতে দারুণ নৈপুন্যতা প্রদর্শন করেছে। দ্বিতীয় উইকেটে তারা ২০৭ রানের বড় একটি পার্টানারশিপ দলকে উপহার দিতে পেরেছিল।

তামিম ১৩০ রানে অপরাজিত থাকলেও মাত্র ৩ রানের জন্য শাকিব তার শতক পূরণ করতে পারেন নি।

সাকিবের উইকেটের পতনের পরে মুশফিকুর রহিম শক্ত হাতে ব্যাট করে ১১বলে ৩০ রান করে নির্ধারিত ওভারের মধ্যেই দলকে ২৭৯ রানের পৌছে নিয়ে যান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজকে 280 রানের একটি বিশাল টার্গেট ছুড়ে দেন।

Source: The Daily Star

বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফির বল হাতে মাঠে ফেরত আসাটাই দর্শকদের জন্য একটি আনন্দকর বিষয়।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের পক্ষ হতে সর্বাধিক উইকেট দখল এর তালিকায় মাশরাফি এগিয়ে আছেন। প্রথম ওয়ানডেতে তার চারটি উইকেট শিকার দলকে ৪৮ রানের একটি জয় এনে দেয়।

অন্যদিকে মোস্তাফিজুর রহমানও প্রথম ম্যাচে ভালো বোলিং নৈপুণ্য তা দেখাতে সক্ষম হন। তিনি ৩৫ রানে দুটি উইকেট শিকার করেন।

মনে হচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে প্রতিহত করতে পরবর্তী খেলাতেও এই দুই বোলার তাদের সর্বোচ্চটুকু দিতে পারবেন।

 

ওয়েস্ট ইন্ডিজঃ

ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট এর মত ওয়ানডে খেলাতে তাদের ক্ষিপ্রতা দেখাতে ব্যর্থ হয়, যে কারণে সীমিত ওভারের খেলার প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের কাছে তাদের পরাজয় স্বীকার করতে হয়।

ক্যারিবিয়ানরা এখন বেশ চাপে থাকবে কারণ যদি এই সিরিজের ট্রফি তাদের স্পর্শ করতে হয় তাহলে পরবর্তী দুটো খেলাতেই বাংলাদেশের বিপক্ষে তাদের জয় লাভ করতে হবে।

ক্রিস গেইল ৪০ রানের একটি ইনিংস খেললেও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তিনি বড় একটি ইনিংস উপহার দিতে পারেননি। অন্যদিকে সীমরন ৫২ রানের ইনিংস খেললেও তার অর্ধশতক অর্জন করার পরে তিনি তার লক্ষ্যে স্থির থাকতে পারেননি।

এই দুই জন ব্যাটসম্যান ছাড়া প্রথম ওয়ানডেতে টাইগারদের বিপরীতে অন্য কোনো ব্যাটসম্যানই তেমন একটা সুবিধা করতে পারেনি।

Source: ESPN Cric Info

ক্যারিবিয়ানদের পক্ষ থেকে প্রথম ওয়ানডেতে দেবেন্দ্র বিশ্ব ১০ ওভার বল করে ৫২ রানের বিনিময়ে দুইটি উইকেটলাভ করেন।

অন্যদিকে অধিনায়ক জেসন হোল্ডার এবং আসলে নার্সের এই মাঠেই যথাক্রমে ৯ টি এবং ৬টি উইকেট শিকারের অভ্যাস রয়েছে। তাই বোলারদের প্রতি অধিনায়ক এর একটি প্রত্যাশা, দ্বিতীয় ম্যাচে যেন তারা তাদের সর্বোচ্চ টি দিয়ে জ্বলে উঠতে পারে।

 

বাংলাদেশ একাদশঃ

মাশরাফি বিন মুর্তজা, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান,তামিমইকবাল,এনামুল হক, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ,মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদী হাসান, সাব্বির রহমানএবং মুশফিকুর রহিম।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশঃ

জেসন হোল্ডার, রভম্যান পাওয়েল, আন্দ্রে রাসেল, অ্যাসলে নার্স, দেবেন্দ্র বিশও, আলজারী জোসেফ, ক্রিস গেইল, এভিন লুইস, শাই হোপ, শিমরন হেটম্যায়ার এবং জেসন মোহাম্মাদ।

 

 

, , , , , , , , , , , , ,