বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজ টি-টুয়েন্টি সিরিজঃ অবশেষে টি-টুয়েন্টিতে জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ

টানা ৫ টি-টুয়েন্টি হারের পরে অবশেষে জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ। ফ্লোরিডার লাউডারহিলে ম্যাচের শেষ ওভারের নাটকীয়তায় উইন্ডিজকে ১২ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। আর সেই সাথে ৩ ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজে ১-১ এর সমতায় ফিরলো সাকিব বাহিনী।

বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজ টি-টুয়েন্টি সিরিজঃ অবশেষে টি-টুয়েন্টিতে জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ
Source: Unknown

 

সিরিজের ১ম ম্যাচে ক্যারিবীয়দের কাছে শোচনীয়ভাবে হেরে উইন্ডিজ সফরের টি-টুয়েন্টি অংশের শুরুটাও খুব বাজে ভাবে হয়েছিল টিগারদের। তার উপর গত নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে হারের পর থেকে টি-টুয়েন্টিতে বাংলাদেশের দলের চেহারাটাও ছিল ধারাবাহিক ভাবে বিবর্ণ।

তাই আমেরিকার মাটিতে নিজেদের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচের ফল নিয়ে আশাব্যঞ্জক কিছু ভাবার অবকাশ খুব কমই ছিল। কিন্তু এই দলটিও যে ঘুরে দাড়াতে সক্ষম, সে কথা ম্যাচের দু দিন আগেই ঘোষণা দিয়ে রেখেছিলেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব।

অবশ্য সিরিজে সমতা ফেরানোর ম্যাচের শুরুটা খুব একটা ভাল ছিল না বাংলাদেশের। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার লিটনকে হারায় বাংলাদেশ। এর কিছুক্ষণ পরেই এ্যাসলে নার্সকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে সাজঘরে ফেরেন ওয়ান ডাউনে নামা মুশফিক। এই দুজনের বিদায়ে পাওয়ারপ্লেতে মাত্র ৩৬ পায় বাংলাদেশ।

তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে যখন সাজঘরে ফিরে যান অফ ফর্মে থাকা সৌম্য সরকার, দলের রান তখন ৭.৪ ওভারে মাত্র ৪৮। এরপরে ৫ নাম্বারে নেমে ক্যারিবীয় বোলারদের উপর দাপট দেখিয়ে খেলতে থাকেন অধিনায়ক সাকিব, তাঁর সঙ্গী হিসেবে ছিলেন এক প্রান্ত আগলে রাখা তামিম। আর এতেই পালটে যায় খেলার দৃশ্যপট।

বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজ টি-টুয়েন্টি সিরিজঃ অবশেষে টি-টুয়েন্টিতে জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ
Source: Twitter

ওয়ানডে সিরিজ থেকেই দলের ব্যাটিং ত্রাতার ভুমিকায় ছিল এই জুটি৷এদিন আবারো ৫০ বলে ৯০ রানের অসাধারন এক জুটি গড়ে দলকে লড়াই করার মত পুঁজি এনে দেয় সাকিব-তামিম জুটি।

৪৪ বলে ৭৪ রানের অসাধারন এক ইনিংস খেলেন তামিম, সাথে সাকিব করেন ৩৮ বলে ৬০ রান। এই দুই ফিফটিতে ভর করে ১৭১ রানের লড়াই করার মত এক সংগ্রহ দাড় করায় বাংলাদেশ।

টি-টুয়েন্টি ম্যাচে প্রতিপক্ষ দলের নাম যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ তখন ১৭২ রানের লক্ষ্য খুব একটা বড় কিছু মনে হওয়ার কথা না। কিন্তু উইন্ডিজ ইনিংসের শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট তুলে নিয়ে কাজটাকে কঠিন করে তুলতে থাকে বাংলাদেশের বোলাররা।

বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজ টি-টুয়েন্টি সিরিজঃ অবশেষে টি-টুয়েন্টিতে জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ
Source: ESPNcricinfo

উইন্ডিজ ইনিংসের ৮ ওভারের মধ্যেই ৫৮ রানে ৪ উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশ। তবে এরপরে অলরাউন্ডার রভমান পাওয়েলকে নিয়ে খুব দ্রুতই ৫৮ রানের জুটি গড়ে তোলে ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার। এই ফ্লেচারকে ক্যাচ বানিয়ে ম্যাচের গতি আবারো নিজেদের দিকে টেনে আনেন বাহাতি “কোবরা” স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু।

ম্যাচের ১৮ তম ওভার শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রয়োজন ছিল ১২ বলে ৩১ রান, হাতে শেষ ৩ উইকেট । ম্যাচটা তখন অনেকটাই বাংলাদেশের দিকে। কিন্তু ১৯ তম ওভারে ১৬ রান দিয়ে দলের জয়টা একটু কঠিন করে ফেলেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। শেষ ওভারে ১৪ রান ডিফেন্ড করাতে “কোবরা” স্পিনার অপুর উপর আস্থা রাখেন অধিনায়ক সাকিব।

শেষ ওভারে রান আটকানোর অভিজ্ঞতাটা বাংলাদেশের জন্যে তেমন সুখকর ছিল কোন কালেই। কিন্তু সেই কাজটাই অসাধারণ ভাবে করে দেখান অপু। শেষ ওভারে মাত্র ২ রান খরচা করে প্রতিপক্ষের ২ উইকেট তুলে নেন এই স্পিনার। সেই সাথে বাংলাদেশও ১২ রানের অসাধারণ এক জয় পায়।

বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজ টি-টুয়েন্টি সিরিজঃ অবশেষে টি-টুয়েন্টিতে জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ
Source: NewIndianExpress

আগামিকালই সিরিজের শেষ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে যাওয়ায় জয় উৎযাপন করার সুযোগ তেমন পাচ্ছে না টাইগাররা। তবে কালকের ম্যাচে জিততে পারলে অনন্য কৃত্তি গড়ার সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশের সামনে। আয়ারল্যান্ড আর জিম্বাবুয়ে ছাড়া আর কোন দলের সাথেই যে টি-টুয়েন্টি সিরিজ জেতা হয় নি টাইগারদের। তাই আগামিকাল সকালে যেন টাইগাররা বড় কিছু উদযাপন করতে পারে সেই শুভ কামনাই রইলো।

, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,