বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিঃ ইতিহাসের সর্বোচ্চ শাস্তি পেলেন অজি ত্রৈয়ী

বল টেম্পারিং ইস্যু ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ভাবমূর্তিতে খুব ভারি পরে গেল। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কাছ থেকে সবাই বেশ কঠোর কিছুই আশঙ্কা করছিল। কিন্তু আমার মনে হয় এই খবরটা সবার আশঙ্কাকেও ছাপিয়ে গেছে। মনে হয় না ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কাছ থেকে কেউ এতটা কঠিন কোন শাস্তির কথা কেউ ভেবেছিল।

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারি
Source: Deutsche Welle

আমারা আপনাদের জন্যে এই অজি ত্রৈয়ীর শাস্তির একটা চার্টই বানিয়ে ফেলেছি।

স্টিভেন স্মিথ

ডেভিড ওয়ার্নার

ক্যামেরুন ব্যাঙ্ক্রফট

১২ মাসের নিষেধাজ্ঞা১২ মাসের নিষেধাজ্ঞা৯ মাসের নিষেধাজ্ঞা
কমিউনিটি ক্রিকেটে ১০০ ঘন্টার সেচ্ছা সেবাকমিউনিটি ক্রিকেটে ১০০ ঘন্টার সেচ্ছা সেবাকমিউনিটি ক্রিকেটে ১০০ ঘন্টার সেচ্ছা সেবা
ভবিষ্যতে নেতৃত্বের জন্যে কখনো বিবেচিত হবেন নাশাস্তির মেয়াদকাল শেষের পরে আরো ১২ মাস পর্যন্ত নেতৃত্বের জন্যে বিবেচিত হবেন না।শাস্তির মেয়াদকাল শেষের পরে আরো ১২ মাস পর্যন্ত নেতৃত্বের জন্যে বিবেচিত হবেন না।

ক্রিকেটের একান্ত শুভাকাঙ্ক্ষী হিসেবে আপনি কি এই রায়ে খুশি? আপনাদের কথা জানি না , তবে এটা আমাকে বেশ বিস্মিতই করেছে। কারন আগের ঘটনার শাস্তি গুলো খুবই কম ছিল। আগের ঘটনা গুলোতে অপরাধীকে আর্থিক জরিমানা বা কয়েক ম্যাচ বহিষ্কারের শাস্তিই শুনানো হয়েছিল। কোন কোন ক্ষেত্রে আবার উভয় শাস্তিই একসাথে দেয়া হয়েছিল। মনে হয় বাকি বিশ্বের কাছে একটি উৎকৃষ্ট উদাহণ দাড় করানোর জন্যে এটা অতি প্রয়োজনীয়ও ছিল।

এই ত্রৈয়ীকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার আচরণ বিধির ২.৩.৫ অনুচ্ছেদ লঙ্ঘন করার কারনে এই শাস্তি দেয়া হয়। উক্ত অনুচ্ছেদে ক্রিকেটীয় চেতনা বিরোধী এবং খেলাটিকে কলঙ্কিত করার ক্ষেত্রে শাস্তির কথা বর্ণিত আছে।

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারি
Source: Evening Standard

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া মনে করে, “স্টিভেন স্মিথ সম্ভাব্য পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতেন। এবং তিনি পরিকল্পনা পরিমার্জন ও বাস্তবায়ন রুখতে কোন পদক্ষেপ নেন নি।“

সিএর প্রতিবেদনে ডেভিড ওয়ার্নার সম্পর্কে উল্লেখ আছে, “তিনি পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্যে কৃতিম উপায়ে শিরিষ কগজ দিয়ে (যা পূর্বে ধারণা করা হয়েছিল টেপ) বলের অবস্থা পরিবর্তন করতে একজন জুনিয়র খেলোয়ারকে উৎসাহিত ও পরিচালিত করেছেন।“ আরো আছে, “তিনি ম্যাচ শেষে এই পরিকল্পনা সম্পর্কে সেচ্ছায় কোন প্রতিবেদনও করেন নি।“

ক্যামেরুন ব্যাঙ্ক্রফট শাস্তি পয়েছেন এই কারনে যে, “তিনি কৃতিম ঊপায়ে বলের অবস্থার পরিবর্তন করার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন ও প্রমান লুকানোর চেষ্টা করেছেন।“

এই শাস্তির আনুষ্ঠানিক ঘোষনার পরে সিএর চেয়ারম্যান ডেভিড পেভার বলেন, “এই ইস্যুতে সিএ বোর্ড সকল অস্ট্রেলীয়দের ক্ষোভ উপলব্ধি করেছে ও ভাগাভাগি করেছে, যেমনটার কথা আমি কাল বলেছিলাম।“

তিনি আরো বলেন, “পেশাদার খেলোয়াড়দের উপর এই গুরুত্বপূর্ন শাস্তি কোন মতেই চাপিয়ে দেয়া হয় নি। আশাকরি এই নিষেধাজ্ঞা কালীন সময় পার করে তাঁরা তাঁদের ভালবাসার খেলাটিতে ফিরবেন ও পুনরায় ক্যারিয়ার গড়ে তুলবেন।“

Source: MNNOFA

সিএর প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড এ প্রসংগে বলেন, “আমরা যে ঘোষনাটি অনুমোদন করেছি তা ব্যক্তিগতভাবে জড়িতদের জন্যে খুবই গুরুত্বপূর্ন। আর এই জন্যেই প্রক্রিয়াটি পুঙ্খানুপঙ্খু ভাবে সম্পন্ন হয়েছে যাতে সংশ্লিষ্ট কোন ঘটনাই খতিয়ে দেখার বাইরে না থাকে।“

“আমি সন্তুষ্ট যে এই অনুমোদিত শাস্তি বৈষম্য রোধ আর ক্রিকেটীয় সুনাম রক্ষার ভারসাম্যের এক পরিপূর্ণ প্রতিফলন। এটি এধরনের কাজে ব্যক্তি সংশ্লিষ্টতা কমানোর জন্যেও প্রয়োজন ছিল। এই ঘটনা থেকে সবারই একটি কঠিন শিক্ষা হয়েছে।“

কিন্তু সিএ ড্যারেন লেহমনকে তাঁর প্রধান কোচের অবস্থানে বহাল রেখেছে।

, , , , , , ,