ফুটবল ইতিহাসে ‘ধর্মীয় অবমাননার’ দায়ে নিষিদ্ধ প্রথম খেলোয়াড় রোলানদো

ফুটবলে নানান অনৈতিক এবং বিতর্কিত কারণে ফুটবলাররা নিষিদ্ধ হয়ে থাকেন। এটা নতুন কিছু নয়। কোচকে গালি দিয়ে, প্রতিপক্ষ খেলোয়ার কে কামড়ে অথবা ভক্ত কে লাথি মেরে; কত কারণে নিষিদ্ধ হন ফুটবলাররা।

কিন্তু ‘ধর্মীয় অবমাননার’ দায়ে ফুটবল ইতিহাসে নিষিদ্ধ হওয়ার ঘটনা ঘটলো এই প্রথম। আর এই নিষিদ্ধ খেলোয়ারের নাম রোলানদো মান্দ্রাগোরা। ইতালিয়ান ফুটবল লিগ সিরি আ তে এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন উদিনেসের এই মিডফিল্ডার।
ফুটবল ইতিহাসে 'ধর্মীয় অবমাননার' দায়ে নিষিদ্ধ প্রথম খেলোয়াড় রোলানদো
Source: Goal.com

ইতালিয়ান সিরি আ এর ক্লাব উদিনেসের মিডফিল্ডার রোলানদো মান্দ্রাগোরা। আর এই মিডফিল্ডার নাকি ‘ধর্মীয় অবমাননাকর’ মন্তব্য করেছেন সিরি আ তে সাম্পদোরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ চলাকালীন সময়েই।অবশ্য সেই ম্যাচে সাম্পদোরিয়ার বিপক্ষে ১-০ গোলে জয় পেয়েছে রোলানদোর ক্লাব উদিনেস । কিন্তু ম্যাচে তার একটি শট ঠেকিয়ে দেন সাম্পদোরিয়ার গোলরক্ষক। আর এতেই তার মুখ থেকে বেরিয়ে আসে হতাশার সেই বেফাঁস আত্মচিৎকার।

তিনি চিৎকার করে ইতালিয়ান ভাষায় “ পোর্চা মাদোনা, ভাফানচুলো, ডিও চেনি” এই শব্দ তিনটি উচ্চারণ করেন। যার বাংলা অর্থ করলে দাঁড়ায় কুমারী মেরিকে অপমান এবং ঈশ্বরকে কুকুর বলে উল্লেখ করা।

অবশ্য খেলা চলাকালীন সময়ে ম্যাচ অফিশিয়াল দের দৃষ্টি এড়িয়ে যায় এই ঘটনা। কিন্তু পরে টিভি ফুটেজ দেখে তারা নিশ্চিত হন যে তিনি ধর্মীয় অবমাননাকর মন্তব্যই করেছেন।
এ সম্পর্কে সিরি আ’ লীগের ডিসিপ্লিনারি কমিটির রিপোর্টে বলা হয় যে, “প্রাসঙ্গিক টিভি ফুটেজ সংগ্রহ এবং পরীক্ষা করে দেখা গেছে যে আশে পাশের কারো উদ্দেশ্যে সে এই শব্দগুলো বলেনি। তাই টেলিভিশনের ছবি দেখে নিশ্চিত ভাবেই বলা যায় যে তিনি ধর্মীয় অবমাননাকর মন্তব্যই করেছেন। তার ঠোঁট পড়ে এটা আরো নিঃসন্দেহে বলা যায়।”
এই রোলানদো মান্দ্রাগোরা দুই মৌসুম আগেও ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসের সদস্য ছিলেন। জুভেন্টাসের হয়ে ২০১৭ সালে জিতেছেন সিরি আ এবং ইতালিয়ান কাপ। আর এই মৌসুমে উদিনেসে আসার আগে ধারে খেলেছেন ইতালির আরেক ক্লাব ক্রোটন এ। ইতালি জাতীয় দলেও খেলেছেন একটি ম্যাচ।
তবে তার এই শাস্তি অসন্তুষ্ট উদিনেসের কোচ ড্যানিয়েল প্রাদে। তিনি বলেন, “ব্যক্তি হিসেবে মান্দ্রাগোরা খুবই ভালো, সে অন্তত একটা সতর্কবাণী পেতেই পারত।”
এমনিতেই ইতালিতে তাচ্ছিল্যের সাথে ঈশ্বরের নাম নেয়া সরাসরি নিষিদ্ধ। আর ২০১০ সাল থেকে ইতালিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন ও বেশ কড়াকড়ি ভাবেই মেনে চলছে এই আইন।
ফুটবল ইতিহাসে 'ধর্মীয় অবমাননার' দায়ে নিষিদ্ধ প্রথম খেলোয়াড় রোলানদো
Source: Juventus
এমনকি এর আগেও সাবেক জুভেন্টাস অধিনায়ক জিয়ানলুইজি বুফনকেও এই একই অভিযোগে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করা হয়েছিল। যদিও তিনি দাবি করেছিলেন তিনি এমন কিছু করেননি।
তিনি বলেছিলেন, “আমি ক্ষমা চাচ্ছি, যদি কোনদিন ঈশ্বরের সাথে দেখা হওয়ার সৌভাগ্য হয়, তবে তিনিই ঠিক করবেন আমাকে ক্ষমা করবেন কিনা।”
যদিও ইউরোপের অনেক দেশেই ধর্মীয় অবমাননার দায়ে শাস্তির বিধান রয়েছে। কিন্তু এর প্রয়োগ যে ফুটবল মাঠে আবেগ আর হতাশা নিঃসৃত চিৎকারের ক্ষেত্রেও হতে পারে, সে ধারণা হয়তো কারোরই ছিল না।
, , , , , , , , , , , , , , , , , , ,