প্রিমিয়ার লিগ: ম্যান সিটি বনাম ম্যান ইউ, ম্যানচেস্টার ডার্বি প্রিভিউ এবং লাইনআপ

পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার সিটি প্রিমিয়ার লিগ এর ১১তম সপ্তাহে এসে তাঁদের শহর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে আতিথেয়তা দেবে আজ। সম্ভবত এটি ই গত কয়েক বছরে প্রিমিয়ার লিগ এর সবচেয়ে মুখোরচক ম্যাচে পরিণত হয়েছে।

প্রিমিয়ার লিগ: ম্যান সিটি বনাম ম্যান ইউ, ম্যানচেস্টার ডার্বি প্রিভিউ এবং লাইনআপ
Image Source: Independent.ie

ম্যানচেস্টার সিটি

ম্যানচেস্টার সিটি প্রিমিয়ার লিগ এর বর্তমান শিরোপাধারী এবং এখন পর্যন্ত এই মৌসুমের পয়েন্ট টেবিল এর শীর্ষ স্থানে রয়েছে। এই মৌসুমে ১১ ম্যাচ শেষে এখন পর্যন্ত তাঁরা অপরাজিত রয়েছে। যদিও লিভারপুল আর চেলসিও এখন পর্যন্ত অপরাজিত রয়েছে।

ম্যান সিটি এই মুহুর্তে বর্তমানে লিগ টেবিলের ৮ নাম্বারে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের চেয়ে ৯ পয়েন্টের পরিস্কার  ব্যাবধানে এগিয়ে থেকে শীর্ষে অবস্থান করছে। আর এই তথ্য পরিস্কারভাবেই আপনাকে বলবে যে আজকের ম্যাচে ইউনাইটেড অনেক পিছিয়ে আছে, কিন্তু এই দু দল মাঠে কি নিয়ে অপেক্ষা করছে তা আন্দাজ করা আসলেই মুশকিল। এই যেমন, ইতিহাদ স্টেডিয়ামে এই দু দলের সর্বশেষ সাক্ষাতে স্বাগতিক সিটিকে ২-৩ গোলে হারিয়েছিল ইউনাইটেড। আর ইউনাইটেড সেই ম্যাচ জিতেছিল ২-০ গোলে পিছিয়ে পরেও।

তবে, পেপ গার্দিওলার দল তাঁদের শেষ ম্যাচে গত সপ্তাহে শাখতার দোনেস্ক এর বিপক্ষে ৬-০ গোলের বিশাল জয় পেয়েছে।  যা কিনা চ্যাম্পিয়নস লিগ এর ইতিহাসে তাদের সবচেয়ে বড় জয়। সিটিজেনরা সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তাঁদের সর্বশেষ ১১ ম্যাচের ১০ টিতেই জিতেছে, যার মধ্যে মাত্র দুটি গোল হজম করার বিপরীতে তাঁরা প্রতিপক্ষের জালে গোল দিয়েছে ৩৫ টি।

ম্যান সিটি তাদের শেষ ৫৩ টি হোম ম্যাচে শীর্ষ চারের বাইরে থাকা কোন দলের বিপক্ষেই কোন ম্যাচ হারেনি।  উপরন্তু, গার্দিওলা তার ম্যানেজার ক্যারিয়ারে একই প্রতিদ্বন্দ্বীর বিপক্ষে ঘরোয়া লিগে  পরপর দুটি হোম ম্যাচ হারে নি। দুই দলের লড়াইয়ের পাশাপাশি এটি দুই ম্যানেজার পেপ গার্দিওলা আর হোসে মরিনহো এর জন্যেও একটি ক্লাসিক লড়াই। এই দুই মহীরুহ কোচ এখন পর্যন্ত তাঁদের কর্মজীবনে ২১ বার মুখোমুখি হয়েছেন যেখানে পেপ গার্দিওলাই ৯ ম্যাচে জয়ের বিপরীতে ৫ হার নিয়ে এগিয়ে আছেন।

ম্যান সিটি এই সপ্তাহে আবারও কেভিন ডি ব্রুইনা কে ছাড়া মাঠে নামবে। যদিও সদ্যই হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি থেকে ফিরে আসা  ইকলদ গুন্দোয়ান এই ম্যাচেও দলে থাকবেন বলে আশা করা যাচ্ছে।

প্রকৃতপক্ষে, গার্দিওলা তাঁর দলের অধিকাংশ খেলোয়াড় ই অসাধারণ ফর্মে থাকায় “কাকে রেখে কাকে নেবেন” টাইপের মধুর সমস্যায় ভুগছেন। যেমন মূল একাদশে অনিয়মিত গ্যাব্রিয়েল জেসুস গত সপ্তাহে হ্যাটট্রিক করেছেন, তবে এখনো প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ গোলদাতা সার্জিও আগুয়েরো এর জায়গা নেওয়াটা তার জন্যে নিতান্তই কঠিন।

প্রিমিয়ার লিগ: ম্যান সিটি বনাম ম্যান ইউ, ম্যানচেস্টার ডার্বি প্রিভিউ এবং লাইনআপ
Image Source: Večernji list

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

ইংলিশ ফুটবল আঙ্গিনার থেকে  ঐতিহাসিকভাবে সবচেয়ে সমৃদ্ধ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বর্তমানে একটা কঠিন সময় পার করছে। যদিও বুধবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচে তুরিনে জুভেন্টাসের বিপক্ষে পিছিয়ে পরেও ১-২ গোলের জয় আর শেষ দুই প্রিমিয়ার লিগ ম্যাচ জয় দিয়ে গত সপ্তাহে তারা খুব ভাল সময় ই কাটিয়েছে।

তবে অবশ্যই, এই জয়ের গতিধারা সারা মৌসুমে জোসে মরিনহোর দলের নিম্নমুখী পারফরম্যান্সকে ঢেকে ফেলতে পারবে না।

রেড ডেভিলস’রা এই মৌসুমে লিগে মাত্র একটি ম্যাচে ক্লিন শীট অর্থাৎ নিজেদের জাল অক্ষত রাখতে পেরেছে এবং বিপরীতে এখন পর্যন্ত খেলা ১১ টি ম্যাচে ১৮ গোল পেয়েছে হজম করেছে। এই একই পরিমান গোল তাঁরা গত মৌসুমে ২৫ ম্যাচে হজম করেছিল। এই তুলনায় তাদের আজকের প্রতিদ্বন্দ্বী সিটি মাত্র ২ গোল হজম করার বিপরীতে প্রতিপক্ষের জালে ৩২ গোল দিয়ে ঢের এগিয়ে আছে।

গত সপ্তাহে দুই ম্যাচে অনুপস্থিত থাকার পর রোমেলু লুকাকু কে এই ম্যাচে দলে পাচ্ছে ইউনাইটেড, তবে মূল একাদশে তিনি জায়গা পাবেন কি না সেটা বলা মুশকিল। এদিকে এখন পর্যন্ত মরিনহোর  প্রধান গোলদাতা অ্যান্টনি মার্শিয়াল একটি অনন্য রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন। আজ রাতে গোল করতে পারলে মাত্র ৭ম খেলোয়াড় হিসেবে প্রিমিয়ার লিগ এ  পরপর ৫ ম্যাচে গোল করা খেলোয়াড়ের তালিকায় স্থান পাবেন তিনি। মার্শিয়াল তাঁর শেষ ৪ ম্যাচে ৫ গোল করেছেন।

ম্যান সিটি এর সম্ভব শুরুর লাইনআপ:

এডারসন; ওয়াকার, স্টোনস, লাপোর্তে, মেন্ডি; বেনার্দো, ফার্নান্দিনহো, সিলভা; স্টার্লিং, আগুয়েরো, সানে

ম্যান ইউনাইটেড এর সম্ভাব্য শুরুর লাইনআপ:

ডি গিয়া; ইয়াং, স্মলিং, লিন্ডেলফ, শ ; হেরেরা, ম্যাটিচ, পগবা; সানচেজ, লুকাকু, মার্শিয়াল

, , , , , , , , , , , , , , , , , ,