পঞ্চ পাণ্ডবের ১০০তম আর মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচকে রাঙিয়ে দিতে প্রস্তুত মিরপুর

বিশ্বকাপের আগে আর কোন হোম সিরিজ নেই টাইগার দের। আর টাইগার অধিনায়ক ‘ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসিক’ মাশরাফি এর আপাতত টার্গেট  ইংল্যান্ডের মাটিতে ঐ বিশ্বকাপ পর্যন্তই। তাই এটা অনেকটা নিশ্চিত যে কালই  বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে তেই মিরপুরের ‘হোম অব ক্রিকেট’ এ শেষ বারের মত টাইগারদের লাল-সবুজ জার্সিতে দেখা যাবে ক্যাপ্টেন ম্যাশকে।

পঞ্চ পাণ্ডবের ১০০তম আর মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচকে রাঙিয়ে দিতে প্রস্তুত মিরপুর
Image Source: PlayPavlion বাংলা – Play Pavilion

এটি নিঃসন্দেহেই বাংলাদেশ ক্রিকেট এর জন্যে এক আবেগঘন মূহুর্ত। তবে বল হাতে তাঁর গত ম্যাচের পারফরমেন্স আর সেই চিরচেনা অসাধারণ অধিনায়কত্ব, অবেগের চেয়ে এই মহীরুহকে আর না পাওয়ার আফসোসটাকেই বাড়িয়ে দিচ্ছে।

অবশ্য এই ব্যাপারে টাইগার ভক্তদের কিছুটা আশার বানী শুনিয়েছেন দলের স্পিন বোলিং কোচ সুনীল যোশী। মিডিয়াকে তিনি বলেন, ” আশাকরি আগামী ম্যাচটাই মিরপুরে তাঁর (মাশরাফির) শেষ ম্যাচ হবে না, আমরা চাই সে আরো খেলুক। ২০০তম ম্যাচেও সে যেভাবে বল করেছে আর সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে, সেটা আসলেই অসাধারণ। “

লাল-সবুজের জার্সিতে মাশরাফি আর এখানে ফিরুক আর না ফিরুক, মিরপুরের ‘হোম অব ক্রিকেট’ যেন দু হাত ভরে ‘ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাস্টিক’ কে বিদায় জানাতে পারে এটাই এখন টাইগার ভক্তদের একমাত্র আশা।

এদিকে, মাশরাফির শেষ ম্যাচ ছাড়াও আরো এক বিশেষ উপলক্ষের সামনে দাড়িয়ে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়াম।  কালকের ম্যাচে ১০০তম বারের মত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশের ভালবাসা আর ভরসার ‘পঞ্চ পাণ্ডব’। মাশরাফি-সাকিব-মুশফিক-তামিম-মাহমুদুল্লাহ এই পাঁচ সিনিয়র মহারথীর সমন্বয়ে গড়া ‘পঞ্চ পান্ডব’ আসলে ভক্ত আর মিডিয়ার ভালবেসে দেওয়া না।

এক যুগ আগে ২০০৬ সালেও ১৪৭ টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে মাত্র তিনটি তে জয় পাওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট দল আজ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছে ‘ডার্ক হর্স’ এর তকমা নিয়ে। আর বাংলাদেশ ক্রিকেটের আজকের এই অবস্থানে পৌছানোর পেছনে এই ‘পঞ্চ পাণ্ডব’ এর অবদান কতটা গুরুত্বপূর্ণ এথেকেই তা বোঝা যায়।

বাংলাদেশ ক্রিকেটের স্বর্নযুগের সারথি  এই পাঁচ জনের একসাথে খেলা ম্যাচে ৪৭ টিতে জিতেছে বাংলাদেশ, আর হেরেছে ৪৮ টিতে। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ থেকেই ধারাবাহিকভাবে ভাল খেলছে বাংলাদেশ।

পঞ্চ পাণ্ডবের ১০০তম আর মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচকে রাঙিয়ে দিতে প্রস্তুত মিরপুর
Image Source: Twitter

আর এই সময়টাতে বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে শিখিয়েছেন ‘ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাস্টিক’ মাশরাফি। আর ব্যাটে-বলে দলকে অসাধারণ সার্ভিস দিয়ে গেছেন ‘নাম্বার ওয়ান’ সাকিব আল হাসান। সেই সাথে দলের সব ম্যাচ-জয়ী ইনিংসের ভিত্তিটা ধারাবাহিক ভাবে গড়ে গেছে তামিম ইকবালের চওড়া ও পরিণত উইলো। এবং দলের মিডিল অর্ডারে ছিলেন ‘মিস্টার ডিপেন্ডল’ মুশফিকুর রহিম। আর ‘আনসাং হিরো’ মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ দলকে জয়ের বন্দরে পৌছে দিয়ে নিজের কাজটা করে গেছেন নিরবেই।

এখন দুটি অসাধারণ উপলক্ষ যথাযথ ভাবে পালন করতে হলে দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতে সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলার বিকল্প নেই বাংলাদেশ টাইগারদের কাছে। আর টাইগার শিবিরেও যে কেউ এর বাইরে ভাবছে না সেটাও নিশ্চিত।

, , , , , , , , , , , , , , , , ,