জাতিগত বৈষম্যের কারনে আন্তর্জাতিক খেলা থেকে অবসর নিচ্ছেন মেসুত ওজিল

মেসুত ওজিলের তুর্কি প্রধানমন্ত্রী রেসেপ তায়েপ এরদোগানের সাথে সাক্ষাতের চিত্র প্রকাশে তাকে নিয়ে জাতিগত বৈষম্যের অপবাদের কারণে তিনি সকল রকম আন্তর্জাতিক ফুটবল খেলা থেকেঅবসর গ্রহণ করেছেন।

Source: Sky Sports

ওজিল এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে জার্মানি দলের হয়ে মূল পর্বে অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ে যাওয়ায় এবং তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সাথে সাক্ষাৎ করার কারনে তার বিরুদ্ধে এরকম অপবাদের সৃষ্টি হয়।

এই আর্সেনাল মিডফিল্ডারের কথার মধ্যে তুর্কীস একটা টান খুঁজে পাওয়া যায়। তা সত্ত্বেও তিনি বড় হয়েছেন জার্মানিতে ।তার মা বাবা দুজনেই তুর্কির নাগরিক।

তুর্কি প্রধানমন্ত্রীর সাথে তার সাক্ষাৎকারের কথা ব্যক্ত করতে গিয়ে তিনি জার্মান ফুটবল ফেডারেশনকেও ছাড় দেননি।

তিনি বলেন প্রধানমন্ত্রীর সাথে আমার ছবি প্রকাশ হওয়াটা এবং তার সাথে আমার সাক্ষাৎ কোনভাবেই রাজনৈতিক কারণে ছিল না। এটা শুধুমাত্র আমার পক্ষ থেকে আমার পরিবারেরজন্ম স্থলের সর্বাধিক ক্ষমতাসীন মানুষকে সম্মান দেখানো ছিল।

Source: Sky news

টুইটারে তার নিজের একাউন্টথেকে তিনি এই বার্তাটি সবার উদ্দেশ্যে প্রকাশ করেন।

তিনি আরও বলেন আমি একজন ফুটবল খেলোয়ার। আমার কাজ ফুটবল খেলা, রাজনীতি করা নয় এবং আমার সাক্ষাৎ কোন ভাবেই কোন জাতীয় রাজনীতিকে পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ার উদ্দেশ্য ছিল না।

কিন্তু আমি জার্মান ফুটবল ফেডারেশন এবং আরও কিছু মানুষের কাছ থেকে যে ধরনের ব্যবহার পেয়েছি তাতে এটাই প্রমাণিত হয় যে তারা কোনভাবেই আর চায় না আমি জার্মানের জাতীয় পতাকা ধারী জার্সিটই গায়ে দেই।

তাদের ব্যবহারে মনে হচ্ছে তারা আমাকে আর চায়না এবং ২০০৯ সালে আমার আন্তর্জাতিক খেলায় সূচনা হবার পর থেকে আমার যত অর্জন ছিল সব কিছুই তারা ভুলে গেছেন।

জার্মান ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি গ্রাইন্ডেল এর উদ্দেশ্য করে সরাসরি তিনি বলেন জাতিগত বৈষম্য আছে এরকম চিন্তাধারার মানুষের কখনই উচিত না পৃথিবীর সব থেকে বড় ফুটবল ফেডারেশনের হয়ে কাজ করা, যেখানে বিভিন্ন জাতির মানুষ একত্রে খেলোয়াড় হিসেবে অংশগ্রহণ করে।

তাদের এই মানসিকতা কোনো ভাবেই তাদের খেলোয়াড়দের প্রতি সাধুবাদ হিসেবে দেখেনা। গ্রাইন্ডেল এবং তার সমর্থকদের চিন্তা ধারায় এবং চোখে আমি ততক্ষণ পর্যন্ত একজন জার্মান যতক্ষণ পর্যন্ত আমি তাদের জন্য জয় এনে দিতে পেরেছি কিন্তু যখনই আমি জয় এনে দিতে পারিনি তখন আমি শুধুমাত্র একজন অধিবাসী।

Source: Goal

খুবই দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে বলতে হচ্ছে তারা আমার সাথে যে ধরনের ব্যবহার করেছে এবং জাতিগত দিক থেকে তারা আমাকে যেভাবে অপমানিত করেছে তাতে আমি মনে করি জার্মান ফুটবল দলের হয়ে ফুটবল খেলা এবং কোন আন্তর্জাতিক ফুটবল খেলায় অংশগ্রহণ করা আমার আর উচিত হবে না।

গর্ব এবং অনেক ভালোবাসার সাথে আমি জার্মানির জার্সি পরিধান করতাম কিন্তু আমি এখন আর সেটা অনুভব করিনা। আমার মনে হয় আমি এখন অনাকাঙ্ক্ষিত তাদের কাছে এবং ২০০৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক খেলায় আমি যত কিছু অর্জন করেছি আমার মনে হয় তারা সেটা ভুলে গেছে।

গ্রাইন্ডেলের সমালোচনা করে ওজিল আরো বলেন, আমি আর তার বলির পাঠা হয়ে থাকতে চাই না, আমার মনে হয় আমি অযোগ্য এবং অক্ষম তার আদেশ পালন করায়।

তিনি আরো বলেন গ্রাইন্ডেলের এর ব্যবহারে আমি মোটেও আশ্চর্য হইনি বরং আমি হতাশ।

২৯ বছর বয়সী এই খেলোয়াড় আরও বলেন যখন জার্মান ফুটবল ফেডারেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আমার তুর্কি শেকড় কে অপমান করে এবং স্বার্থপরের মত আমাকে রাজনৈতিক অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে তখন সত্যিই যথেষ্ট হয়েছে।

ওজিলের সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করে বায়ার্ন মিউনিখের সভাপতি অলি হেন্স বলেন ওজিল বিগত বেশ কিছু বছর ধরে জঘন্য খেলে আসছে শেষ ২০১৪ সালে ওজিল ভালো খেলেছিল। মাঠে এসে শুধু ক্রস পাস করে যায়, আর এখন সে তার খারাপ পারফরমেন্সকে এই ছবির মাধ্যমে ঢেকে দেওয়ার চেষ্টা করছে। যখনই আমরা আর্সেনালের বিরুদ্ধে খেলেছি তখনই আমরা তাকে উদ্দেশ্য করে খেলেছি কারণ আমরা এটা জানতাম তিনি আর্সেনালের দুর্বল পয়েন্ট।

তার এই বক্তব্যে ওজিল কোন মন্তব্য না করে বলেন পরাজয় দিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ার পরই আমি এবং আমার পরিবার সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অনেক হুমকি এবং গালিগালাজ এর স্বীকার হয়েছি।

জার্মানির মানুষের এই ব্যবহার আমাকে পুরানো জার্মানের কথা মনে করিয়ে দেয় যেটা নিয়ে আসলে গর্ব করার কিছুই নাই এবং আমি কোনোভাবেই গর্বিত নই।

এবং আমার মনে হয় যারা মুক্ত সামাজিকতায় বিশ্বাস করে তারাও আমার সাথে একমত হবেন।

বৈষম্যতা বিরোধী একটি সংস্থা ওজিলের এই ঘটনাকে জাতিগত বৈষম্যের ব্যবহার হিসেবে আখ্যায়িত করেন এবং তারা বলেনএই ঘটনার মাধ্যমে ওজিলকে অসম্মানিত করা হয়েছে এবং তারা ওজিলের পক্ষে থাকার কথা ব্যক্ত করেন।

আন্তর্জাতিক খেলা থেকে অবসর নেওয়ার এই ঘটনাকে তারা খুবই অনাকাঙ্ক্ষিত এবং লজ্জাজনক হিসেবে ব্যক্ত করেন এবং সকল খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে তারা একটি কথাই বলেন এটি তাদের জন্য একটি শিক্ষা যে এই খেলাটি বিভিন্ন জাতির খেলোয়ারদের নিয়ে কিভাবে তারই একটি প্রতিফলন মাত্র।

 

, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,