এশিয়া কাপ ২০১৮ঃ মাঠে নামার জন্যে প্রস্তুত টাইগার বাহিনী, পিছু ছাড়ছে না ইঞ্জুরি ইস্যু

এশিয়া কাপের আর মাত্র একদিন বাকি। ইতি মধ্যে সব দল ই দুবাইতে পৌছে গেছে। বৃহস্পতিবার আরবি বছর শুরু হওয়াতে সরকারি ছুটি ছিলো। তাই খেলোওয়াড়রা এই ছুটিতে একটু অবসর পেয়েছিল। এইবারের এশিয়া কাপের উদ্বোধনী খেলায় বাংলাদেশ শ্রীলংকার প্রতিপক্ষ হয়ে মাঠে নামবে।

এশিয়া কাপ ২০১৮ঃ মাঠে নামার জন্যে প্রস্তুত টাইগার বাহিনী, পিছু ছাড়ছে না ইঞ্জুরি ইস্যু
Source: bdnews24.com

কিন্তু বাংলাদেশী শিবিরের সাবার কপালে এই সুখ ছিলো না। এইবারের বাংলাদেশ দলে বেশ কিছু ইঞ্জুরী রয়েছে। এর মধ্যে অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এর ইঞ্জুরি নিয়েই সবাই বেশি চিন্তা করছে। সাকিব গত জানুয়ারিতে তার বা হাতের কনিষ্ঠ আংগুলে আঘাত পান।

এছাড়া ওপেনার তামিম ইকবালের ডান হাতের অনামিকা আংগুলে ছোট একটা ইঞ্জুরী এবং নবাগত নাজমুল হসেইন শান্ত অনুশীলনী তে তার ডান হাতের তর্জনীতে আঘাত পান যাতে করে তার আঙ্গুলের জয়েন্ট ছুটে যায়।

তমিম দুবাইতে সবার শেষে দলের আর সব সদস্যদের সাথে চলতি মাসের ১২ তারিখে যোগ দেন। তামিমের ভিসা জটিলতার কারনে দুবাইতে দলের সাথে যোগ দিতে তার দেরি হয়। তাই দলের অন্য সবাই যখন তাদের হটেল রুমে বিস্রাম করছিলো তখন তামিমকে দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে শেষ সময়ে নিজেকে একটু ঝালিয়ে নিতে দেখা যায়।

এশিয়া কাপ ২০১৮ঃ মাঠে নামার জন্যে প্রস্তুত টাইগার বাহিনী, পিছু ছাড়ছে না ইঞ্জুরি ইস্যু
Source: Cricketnmore

 

 

টীম ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ বলেন শান্ত এখন ইঞ্জুরীতে রয়েছে। আর আজ সাকিব তামিম এবং শান্ত এরা সবাই মাঠে নেমেছিল অনুশীলন করার জন্য। তিনি বলেন, আমার মতে আমার খেলোয়াড়েরা প্রস্তুত এবং তাদের যা করনীয় তারা ঠিকই করবে। আমার মনে হয়না ইঞ্জুরী তাদের খেলার উপর কোন প্রভাব ফেলবে।

ম্যানেজার খালেদ মাহমুদের দুবাইয়ের ভিসা নিয়ে একটা সমস্যা হয়েছিল বিধায় দুবাই পৌছাতে তারও দেরি হয়। তিনি আরো বলেন, ” ইনশাআল্লাহ আমরা আমাদের সম্পুর্ন শক্তি নিয়েই মাঠে নামব।”

সাকিবের আঙ্গুলের ইনজুরিতে টিম ম্যানেজমেন্টও দুশ্চিন্তায় রয়েছে। কারন দলের অন্যতম অলরাউন্ডার যখন বলেন যে, দীর্ঘদিনের এই আঙ্গুলের ইঞ্জুরি নিয়ে ব্যাটিং করাটা আসলেই খুব কষ্টকর ব্যাপার। তখন ম্যানেজমেন্টের চিন্তা হওয়াটাই স্বাভাবিক। সাকিবের কাছ থেকে আরো জানা যায় যে তার আঙ্গুলে এখনও ব্যাথা আছে। আঙ্গুল্টি আংশিক বাকা হয়েও আছে, এবং এর জন্য চামড়া খানিকটা ঘুচিয়ে থাকে।

সাংবাদিকদের মাহমুদ বলেন, ” খেলতে চায় বিধাই সে এই কষ্ট সহ্য করছেন। কারন সাকিবের সেই প্রতিভা এবং অভিজ্ঞতা রয়েছে। আর তা ছাড়া সাকিব এই ধরনের ছোট ইঞ্জুরি নিয়ে এর আগেও বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলেছেন। কারন তিনি দেশ এবং দলের জন্য খেলছেন। প্রথমে আমরা যেরকম ভেবেছিলাম ইঞ্জুরি টা ততটা খারাপ না। আল্লাহ্‌ এর রহমতে তিনি এখন অনেক সুস্থ। আমার ধারনা তারা সবাই পুর্ন প্রতিশ্রুতিতে তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করবেন।”

এশিয়া কাপ ২০১৮ঃ মাঠে নামার জন্যে প্রস্তুত টাইগার বাহিনী, পিছু ছাড়ছে না ইঞ্জুরি ইস্যু
Source: CricketCountry.com

পরিশেষে তিনি জানান, সাকিব এবং তামিমকে প্রথম ম্যাচেই মাঠে দেখা যেতে পারে। এবং তিনি বলেন, ” এই অনুশীলন দলের খেলোয়াড়দের ফিটনেস মুল্যায়নের জন্য না।”

আসলে তারা খুব একটা বেশি অনুশীলনকরতে পারে নি, কারন তামিম অনেক পরে দলের সাথে যোগ দিয়েছে। শান্ত পরিপুর্ণ ভাবে তার আঙ্গুলের ব্যাথার জন্য অনুশীলন করতে পারে নি। সাকিবেরব অবস্থাও ঠিক একি রকম ছিল। দলের অন্যরা যখন বিশ্রাম করছিল তখন তারা দলের কোচদের সাথে নেটে অনুশীলনকরছিল।

এখন অপেক্ষার পালা, এশিয়ার সেরা দল হবার লড়াইয়ের বাংলাদেশ দল শ্রীলংকার বিপক্ষে তাঁদের প্রথম ম্যাচে কেমন করবে ।

, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,