ইউএস ওপেন ফাইনাল ২০১৮: জোকোভিচের ১৪ তম নাকি দেল পোত্রোর ২য়?

ইউএস ওপেন এর পুরুষ এককের ফাইনালে আজ মুখোমুখি সার্বিয়ান নোভাক জোকোভিচ ও আর্জেন্টাইন হুয়ান  দেল পোত্রো।  যদিও টুর্ণামেন্টে শুরুতেই অনেকেই ফেদেরার-নাদাল ফাইনালের আশা করেছিলেন, কিন্তু ফাইনালের আগেই বিদায় নিয়েছেন দুজনই।

দেল পোত্রো ফাইনালে উঠেছেন নাদালকে হারিয়েই। তবে নাদাল যতটা না দেল পোত্রোর কাছে হেরেছেন তার চেয়ে বেশি চোটের কাছে। প্রথম সেটে থেকেই অস্বচ্ছন্দ বোধ করছিলেন নাদাল। দুই দফা চিকিৎসা নিয়েও খুব একটা স্বস্তি বোধ করছিলেন না কোর্টে। তাই চোটের কাছে হার মেনে দ্বিতীয় সেটের পরই  ফ্লাশিং মিডো ছেড়ে যেতে বাধ্য হন টেনিসের এই স্প্যানিশ কিংবদন্তি।

যদিও চোটের কারনে নাদালের মাঠ ছেড়ে যাওয়ার আগে ম্যাচের ফলাফল দেল পোত্রোর অনুকূলেই ছিল। প্রথম দুই সেটে ৭-৬ (৭/৩), ৬-২ এ জিতে এগিয়ে ছিলেন এই আর্জেন্টাইন ই। তবে কোয়াটার ফাইনালে পৌনে ৫ ঘন্টা নাদাল চোটে জর্জরিত না হলে শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ফলাফল কি হত সেটা বলা মুশকিল।

ফ্লাশিং মিডো ত্যাগ করার আগে নাদাল বলেন,  ” মাঝপথে কোর্ট ছেড়ে যাওয়া পছন্দ নয় আমার। কিন্তু একজন টেনিস খেলছে আর একজন কোর্টের এক পাশে দাড়িয়ে থাকবে, এভাবে টেনিস হয় নাকি!
ইউএস ওপেন ফাইনাল ২০১৮: জোকোভিচের ১৪ তম নাকি দেল পোত্রোর ২য়?
Source: Detroit News
অবশ্য নাদালের এমন বিদায়ে যেন জয়ের আনন্দটাই পুরোপুরি মিলিয়ে গেছে হুয়ান দেল পোত্রোর। অবশ্য নাদালের অবস্থা তার থেকে কেই বা ভাল বুঝবে! কবজির চোটের কারনে তো ক্যারিয়ারই শেষ হতে বসেছিল এই আর্জেন্টাইন এর।
ম্যাচ শেষে নাদালের প্রতি সহমর্মিতা প্রদর্শন করে তিনি বলেন, ” অবশ্যই ম্যাচ জয়ের এটা কোন ভাল উপায় হতে পারে না। আমি নাদালের বিপক্ষে খেলতে ভালবাসি। এই খেলাটায় সে সবচেয়ে বড় লড়াকু। কিন্তু সে কষ্ট পাচ্ছে, এটা দেখতে চাই না আমি।”

তবে আজ রাতে ফ্লাশিং মিডো তে সেমিফাইনালের ম্যাচের কথা বাদ দিয়ে নিজের ফাইনাল নিয়েই ভাবতে হবে দেল পোত্রোকে। কারন ২০০৯ সালে এর পর এবারই প্রথম আবার কোন গ্রান্ড স্লাম এর ফাইনালে উঠেছেন তিনি।

অন্য দিকে জাপানের কেই নিশিকোরিকে সেমিফাইনালে ৬-৩, ৬-৪, ৬-৩ গেমে হারিয়ে বেশ স্বাচ্ছন্দেই ফাইনালে উঠেছেন সার্বিয়ান তারকা নোভাক জোকোভিচ। আর র‍্যাংকিং ছাড়া দেল পোত্রোর থেকে সব দিক থেকেই এগিয়ে জোকোভিচ।  দেল পোত্রোর র‍্যাংকিং ৩ আর জোকোভিচের ৬।

এই হিসাব বাদ দিলে সার্ভিয়ান জোকোভিচকে আর্জেন্টাইন দেল পোত্রোর থেকে নিঃসন্দেহে এগিয়ে রাখা যায়। দেল পোত্রোর ২য় গ্রান্ডস্লাম ফাইনালের তুলনায় এটি জোকোভিচের ২৩ তম গ্রান্ডস্লাম ফাইনাল। সেই ২০০৯ সালের ইউএস ওপেন ই দেল পোত্রোর একমাত্র গ্রান্ড স্লাম শিরোপা, অন্যদিকে জোকোভিচের গ্রান্ড স্লাম শিরোপা ১৩ টি। তাই জোকোভিচই যে এই ফাইনালের ফেভারিট তা বলাই যায়।

ইউএস ওপেন ফাইনাল ২০১৮: জোকোভিচের ১৪ তম নাকি দেল পোত্রোর ২য়?
Source: Sports Illustrated

তবে এত সব জেনেও দেল পোত্রোতে মুগ্ধ জোকোভিচ ফাইনালের আগে বলেন, ” আমরা কখনো কোন গ্রান্ড স্লামের ফাইনালে মুখোমুখি হই নি। ব্যক্তি ও খেলোয়াড় হিসেবে তাঁর প্রতি আমার অশেষ শ্রদ্ধা। ব্যক্তি হিসেবে সে অসাধারণ। অতীতে চোট নিয়ে অনেক সমস্যায় ভুগেছে সে, কিন্তু সে বড় ম্যাচের খেলোয়াড়। “

যাই হোক, কার হাতে উঠছে ইউএস ওপেন ২০১৮ এর শিরোপা তার ফয়সালা হয়ে যাবে আজ রাতেই।

, , , , , , , , , , , , , , , , , ,