ইংল্যান্ড বনাম ভারত টেস্ট ম্যাচঃ ভারতের ২৭ রানের লিড সংগ্রহ

টেস্ট ম্যাচ যে এখনও তার পরতে পরতে রঙ ছড়াচ্ছে তার অন্যতম এক উদাহরণ হচ্ছে বর্তমানে চলা ইংল্যান্ড বনাম ভারত এর ৪র্থ টেস্ট ম্যাচ।

আর কেনই বা হবে না? ভারত যখন ১ রানের লিড নিল, ভারতের ড্রেসিং রুমে তখন আনন্দের ফোয়ারা বইছে। উদযাপন আহামরি কিছু ছিল না। যদিও এই টেস্ট ম্যাচ এখনও কোন ফলাফলে পৌছায় নি।

এই ম্যাচের প্রথম দিনে ইংল্যান্ড কেবল ২৪৬ রানে করেই তাদের প্রথম ইনিংসের সমাপ্তি ঘটায়। ঠিক একই দিনে, দিনের শেষ সেশনে ভারত বিনা উইকেটে ১৯ রান সংগ্রহ করে।

Source: Indian Express

ভারত অবশ্য দ্বিতীয় দিনের খেলায় প্রথম সেশনে ২ উইকেট হারায়। এই ক্ষেত্রে সফলতম বোলার স্টুয়ার্ট ব্রড। কারণ তিনিই এই দুই উইকেট শিকারি।

দিনের ৪র্থ ওভারেই এল বি ডব্লুউ এর ফাঁদে পড়েন কে এল রাহুল। যদিও রিভিউ নিয়ে তার আর শেশ রক্ষা হয় নি।

আরেক ওপেনিং ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ান দলীয় ৫০ রানের সময় আউট হয়ে ড্রেসিং রুমে ফেরত যান। খুব দ্রুত দুই ওপেনিং ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ভারত খেলা থেকে কিছুটা ছিটকে পড়ে।

কিন্তু পূজারা ও কোহলি উভয়ই ক্রিসে থিতু হয়ে পড়লে ভারত সেই চাপ কাটাতে সমর্থ হয়।

সমর্থকেরা কোহলি থেকে আরো একটি শতকের প্রত্যাশা করতেই পারে। কিন্তু সে তার অর্ধ-শতকই পূরন করতে পারে নি। যদিও কোহলি ব্যাক্তিগত ৪৬ রানে আউট হয়।

আসলে কোহলির আউট হওয়ার পর থেকেই ভারতীয় ব্যাটিং ধ্বস শুরু হয়। ১৯৫ রানে ৮ উইকেট হারানোর পর কেউ হয়তোবা আশাই করতে পারে নি যে ভারত ১ রানেরও লিড নিতে পারবে।

কিন্তু এমন দিনে কোহলী এক রেকর্ডে নিজের নাম লিখিয়ে ফেলেন। ভারতীয়দের মধ্যে ১১৯ ইনিংসে ৬০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি।

এর আগে শুধু সুনিল গাভাস্কারই ১১৭ ইনিংসে এই রেকর্ডটি করেন।

Source: Deccan Chronicles

ইংলিশ দলপতিকে খুব খুশিই দেখাচ্ছিল যখন তার বোলাররা এমন অগ্নিঝরা পারফরমেন্স দেখাচ্ছিল। জো রুট সম্ভবত চিন্তাই করছিল যে সে এবার লিড পেতে যাচ্ছে। কিন্তু তার এই আশাকে গুড়ে বালি করে ভারতীয় ব্যাটসম্যান পূজারা।

নবম উইকেট জুটিতে পূজারা এবং ইশান্ত শর্মা ৩২ রান যোগ করে। এরপর ইশান্ত শর্মা আউট গেলে শেষ উইকেট জুটিতে পূজারা ও বুমরাহ আরো ৪৬ রান যোগ করে।

ইতিমধ্যে পূজারাও তার শতকটি পূরণ করে ফেলে। তার এই শতকের উপর ভর করেই ভারত লিড পায়।

Source: Deccan Chronicles 

ভারতের এই সংগ্রাম ২৭৩ রানে এসে ঠেকে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে কোন উইকেট না হারিয়ে ইংল্যান্ড তাদের স্কোর বোর্ডে ৬ রান তুলে এবং তারা এখনো ভারতের লিড রান থেকে ২১ রান পিছিয়ে।

 

, , , , , , , ,